৫০ বছর ধরে জ্বলছে আগুন!

৫০ বছর ধরে জ্বলছে আগুন!

তুর্কমেনিস্তানের কারাকুম মরুভূমির সেই গহ্ববর। ‘নরকের দরজা’ বলা হয় তাকে। পর্যটকরা কারাকুম মরুভূমি বেড়াতে গেলে একবার দেকেহ আসেন দূর থেকে। কারণ ওই গহ্ববরে ৫০ বছর ধরে আগুন জ্বলছে! নেভানো যায়নি। অদ্ভূত এক আশ্চর্য এই গহ্ববর। ২২৯ ফুট চওড়া আর ৬৬ ফুট গভীর এই গর্ত। ১৯৭১ সাল থেকে এখানে জ্বলছে আগুন। এর পেছনে রয়েছে এক কাহিনী। সাতের দশকের গোড়ায় ওই মরুভূমিতে সোভিয়েত রাশিয়ার ভূতত্ববিদরা কারাকুমে তেলের খনি খুঁজতে বালি খোঁড়া শুরু করেছিলেন। তখন ভুলবশত প্রাকৃতিক গ্যাসের এক ভান্ডারে আঘাত লেগে যায়। ফলে মাটি ধ্বসে সৃষ্টি হয় এক বিশাম আর গভীর গহ্ববরের। গর্তের মধ্যে থাকা বিষাক্ত মিথেন গ্যাস যাতে বাতাসে ছড়িয়ে পরতে না পারে তাই বিজ্ঞানীরা সেখানে আগুন লাগিয়ে দেন। তাদের ধারণা ছিল পরের কয়েক সপ্তাহের মধ্যে গর্তের মধ্যে থাকা সমস্ত মিথেন পুড়ে শেষ হয়ে যাবে। কে ভেবেছিল সেই আগুন ৫০ বছরেও নিভবে না!
কিন্তু সম্প্রতি তুর্কমেনিস্তানের প্রেসিডেন্ট নির্দেশ দিয়েছেন, যে কোনওভাবে ওই গর্তের মুখ বন্ধ করে দিতে হবে। না হলে পরিবেশ ও মানুষের স্বাস্থ্যে ওই আগুন আরও ক্ষতি করছে।
নরকের দরজা হয়ত এবার বন্ধ হবে!