আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণে কার্বন ডাই অক্সাইডের ভূমিকা

আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণে কার্বন ডাই অক্সাইডের ভূমিকা

দীর্ঘকাল ধরে, ভূ-বিজ্ঞানীরা বিশ্বাস করতেন যে পৃথিবীর ভূত্বকের অগভীরে থাকা ম্যাগমার সাথে জল মিলিত হয়েই আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত ঘটে। তবে এক নতুন গবেষণায় দেখা গেছে যে বায়বীয় কার্বন ডাই অক্সাইড বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে। একটি নতুন মডেল থেকে জানা যায় যে বেসাল্টিক আগ্নেয়গিরি, যা সাধারণত টেকটোনিক প্লেটের অভ্যন্তরীণ অঞ্চলে পাওয়া যায়, পৃথিবীর পৃষ্ঠের প্রায় ২০ থেকে ৩০ কিলোমিটার নীচে অবস্থিত ম্যান্টলের গভীরে থাকা ম্যাগমার সাহায্যে জ্বলে ওঠে। গবেষণাটি প্রসিডিংস অফ ন্যাশনাল একাডেমি অফ সায়েন্সে প্রকাশিত হয়।
গবেষকদের মতে পূর্বে ধারণা ছিল যে ভূত্বকের মধ্যে অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে তবে সাম্প্রতিক তথ্য থেকে বোঝা যাচ্ছে যে ম্যাগমা সরাসরি ম্যান্টেল থেকে এসে ভূত্বকের ভিতর দিয়ে খুব দ্রুত গতিতে অতিক্রম করে এবং এই পদ্ধতিটি কার্বন ডাই অক্সাইড দ্বারা চালিত হয়। আগে ভাবা হত যে সমস্ত আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের প্রধান চালক হল জল, তবে সম্প্রতি এটা প্রমাণ হয়েছে যে কার্বন ডাই অক্সাইডের কারণে পৃথিবীর গভীরে থাকা ম্যাগমা বেরিয়ে আসে। বিজ্ঞানীরা আটলান্টিক মহাসাগরের সেনেগালের পশ্চিমে কাবো ভার্দেতে ফোগো আগ্নেয়গিরি থেকে আগ্নেয়গিরির ভূগর্ভস্থ জমা স্তর পরীক্ষা করেছেন। তারা ম্যাগনেসিয়াম-আয়রন সিলিকেট ক্রিস্টালের মধ্যে বেশি ঘনত্বের উদ্বায়ী বস্তু খুঁজে পেয়েছেন। ক্রিস্টালে আবদ্ধ কার্বন ডাই অক্সাইডের উচ্চ পরিমাণ থেকে বোঝা যায় যে ম্যাগমা ভূপৃষ্ঠের থেকে বেশ কয়েক কিলোমিটার নীচে – পৃথিবীর স্তরের ম্যান্টলের মধ্যে সংরক্ষিত ছিল।