নক্ষত্রের মৃত্যু রহস্য

নক্ষত্রের মৃত্যু রহস্য

দৈত্যাকার নক্ষত্রদের মৃত্যুর কথা আমরা অনেক সময়েই শুনে থাকি। কিন্তু কেমন ভাবে মৃত্যু হয় তাদের? শেষ মুহূর্তে কেমন দেখতে লাগলে ওইসব অতিকায় বৃহৎ নক্ষত্রদের? এইসব এতদিন দেখা যায়নি। তবে এবার এক নক্ষত্রের মৃত্যু চাক্ষুষ করেছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। কীভাবে ধীরে ধীরে একটি দৈত্যাকার নক্ষত্র ক্রমশ মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যায়, নক্ষত্রের মৃত্যুর শেষ পর্যায়ের দৃশ্য কেমন দেখতে হয়— এইসবই ধরা পড়েছে একটি গ্রাউন্ড বেসড টেলিস্কোপে। এই প্রথম জ্যোতির্বিজ্ঞানের দুনিয়ায় এমনটা ঘটেছে। গবেষকরা রিয়েল টাইমে বিস্ফোরণে ফলে কোনও দৈত্যাকার নক্ষত্রের মৃত্যুর মুহূর্তের সাক্ষী থেকেছেন। জানা গিয়েছে, যে জায়ান্ট স্টার বা দৈত্যাকার নক্ষত্রের মৃত্যু হয়েছে, সেটি পৃথিবী থেকে ১২০ মিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত ছিল। এই নক্ষত্রের অবস্থান ছিল NGC ৫৭৩১ গ্যালাক্সি বা ছায়াপথের মধ্যে। নিজে নিজেই ধ্বংস হয়েছে এই অতিকায় বৃহৎ আকারের নক্ষত্র। জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বলেছেন নক্ষত্র ধ্বংসের মুহূর্ত ছিল একেবারে নাটকীয়। ধ্বংসের পর টাইপ- ২ সুপারনোভাতে ভেঙে পড়েছে ওই দৈত্যাকার নক্ষত্র। জ্যোতির্বিজ্ঞানের দুনিয়ায় এই প্রথম কোনও নক্ষত্রের মৃত্যু এত বিস্তারিত ভাবে চাক্ষুষ করার সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত গবেষকরা।