চলে গেলেন ‘আধুনিক ডারউইন’

চলে গেলেন ‘আধুনিক ডারউইন’

২৬ ডিসেম্বর চলে গেলেন কিংবদন্তি কীটতত্ববিদ, দু’বারের পুলিৎজার বিজয়ী এডওয়ার্ড ও’উইলসন, যাকে বলা হত ‘আধুনিক ডারউইন। তার বয়স হয়েছিল ৯২। হার্ভার্ড কলেজের অধ্যাপক সম্প্রতি বাসিন্দা ছিলেন ম্যাসাচুসেটসের। সেখানে তিনি প্রয়াত হন। কলেজে তার সতীর্থ বার্ট হলডোবলারের সঙ্গে ১৯৯১-এ যৌথভাবে লেখা দ্য অ্যান্টস তাকে এনে দেয় দ্বিতীয় পুলিৎজার। উইলসনকে বলা হত ‘অ্যান্ট ম্যান’। তার অনেক আগে, ১৯৭৯-তে তার প্রথমবার পাওয়া হয়ে গিয়েছিল অসামান্য এই পুরষ্কার। লিখেছিলেন বিখ্যাত বই ‘অন হিউম্যান নেচার। যার মধ্যেই ছিল ‘ইনসেক্ট সোসাইটি আর সোশিওবায়োলজি। বহুবছর আগে উইলসন ভবিষ্যদ্বাণী করে গিয়েছিলেন মানুষের মধ্যে হিংস্রতা যেভাবে বাড়ছে তাতে একদিন পৃথিবীর বাস্তুতন্ত্র ধ্বংসের মুখে পড়বে। পিপঁড়ে ও অন্যান্য বহুরকমের কীটপতঙ্গ নিয়ে উইলসনের নিবিড় সাধনা তাকে দিয়েছে বায়োসায়েন্সে সর্বোচ্চ পুরষ্কার ১৯৯০-এ। রয়াল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্সের দেওয়া ক্রাফোর্ড পুরষ্কার।