পৃথিবীর ভবিষ্যৎ নিয়ে

পৃথিবীর ভবিষ্যৎ নিয়ে

একশ থেকে দুশো কোটি বছর পরে পৃথিবী কি প্রাণহীন হয়ে যাবে? অণুজীবী ছাড়া আর কি কেউ সেখানে থাকবে না? অক্সিজেনের জায়গা কি দখল করে নেবে কার্বন ডাই অক্সাইড? নেচার জিওসায়েন্স পত্রিকায় এই মর্মে একটি নিবন্ধে এমনই আশঙ্কা করা হয়েছে। নাসার অর্থসাহায্যে চলা একটি গবেষণায় দুই মূল গবেষক আমেরিকার জর্জিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির ভূবিজ্ঞানী অধ্যাপক ক্রিস রেনহার্ড ও জাপানের তোহো বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশবিজ্ঞানী অধ্যাপক কাজুমি ওজাকির দাবি, এই পরিস্থিতি আসবে সূর্যের তাপে পৃথিবী জ্বলেপুড়ে খাক হয়ে যাওয়ার আগেই। সেই সময় পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল ভরে যাবে শুধুই বিষাক্ত মিথেন গ্যাসে। যে গ্যাসে নির্ভর করে বাঁচতে পারে বিশেষ কয়েকটি অণুজীব। তখন মানুষ, অক্সিজেনের উপর নির্ভরশীল কোনও প্রাণী বা সালোকসংশ্লেষ-নির্ভর কোনও উদ্ভিদই আর টিকে থাকতে পারবে না পৃথিবীতে। ২৪০ কোটি বছরেরও আগে এমনই অবস্থা ছিল পৃথিবীর। এই গ্রহ আবার সেই পরিবেশে ফিরে যাবে। সেটা আর ১০০ থেকে ২০০ কোটি বছরের মধ্যেই হতে পারে।

ছবি: নাসার সৌজন্যে