সিংভূম জেলাই প্রাচীনতম মহাদেশীয় অঞ্চল!

সিংভূম জেলাই প্রাচীনতম মহাদেশীয় অঞ্চল!

এত বছর ধরে গবেষকরা এটাই জানতেন যে সমুদ্রের তলা থেকে মহাদেশগুলোর সৃষ্টি প্রায় ২.৫ বিলিয়ন বছর আগে। কিন্তু সাম্প্রতিক একটি গবেষণা জানাচ্ছে এত বছর ধরে যা জেনে আসছি সেটা ঠিক নয়! ভারত, অষ্ট্রেলিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীদের করা এই নতুন গবেষণা জানাছে পৃথিবীর প্রথম মহাদেশের উত্থান তারও প্রায় ৭০০ মিলিয়ন বছর আগে হয়েছিল এবং বিজ্ঞানীরা আরও নির্দিষ্টভাবে জানিয়েছেন, পৃথিবীর প্রথম যে অঞ্চলটি সমুদ্রের তলা থেকে বেরিয়েছিল সেটি হল ঝাড়খণ্ডের সিংভূম জেলা! তার বয়স ৩.২ বিলিয়ন বছর! বিজ্ঞানীরা এবং প্রত্নতাত্বিকরা সিংভূমে যে বেলেপাথর দেখেছেন, প্রাচীনকালের একটি নদী ও নালা দেখেছেন, জোয়ার, ভাটার পর নদীর যে মাটি তারা খুঁজে পেয়েছেন সেগুলো বিশ্লেষণ করার পর তাদের মনে হয়েছে সিংভূমই পৃথিবীর প্রাচীনতম মহাদেশীয় অঞ্চল। গবেষকদের নেতৃত্বে থাকা প্রিয়দর্শী চৌধুরী জানিয়েছেন, বেলেপাথরের ভেতর যে ইউরেনিয়াম এবং অন্যান্য ছোট ছোট খনিজ দ্রব্যের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে তার থেকেই তাদের এই সিদ্ধান্তে আসা। চৌধুরী আরও জানিয়েছেন, বেলেপাথরগুলো বিশ্লেষণ করে বোঝা গিয়েছে পাথরগুলোর বয়স অন্তত ৩.১ বিলিয়ন বছর! এবং তাদের সৃষ্টি নদীর মধ্যে, উপত্যকায় এবং সমুদ্রের খাড়িগুলোর মধ্যে। সেই সময় সমুদ্র অবশ্যই ছিল, কিন্তু তার মধ্যে থেকেই উত্থান হয়েছিল সিংভূমের ওই অঞ্চলের! তবে একইসঙ্গে, বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, প্রাচীনতম মহাদেশীয় অঞ্চলের তালিকা তৈরি করতে হলে সিংভূমের সঙ্গে অষ্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকাও আসবে।
বিজ্ঞানীরা আরও একটি প্রচলিত ধারণাকে ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন যে, প্লেট টেকটনিকসের ফলেই মহাদেশগুলোর সৃষ্টি। চৌধুরীর নেতৃত্বে থাকা গবেষকরা জানাচ্ছেন, প্লেট টেকটনিকসের ফলে হিমালয়ের সৃষ্টি হতে পারে, আল্পসের সৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু ৩ বিলিয়ন বছর আগে মাটি বা জমির উত্থান সেভাবে হয়নি। বিজ্ঞানীদের মতে, সেই সময় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে জমির ওপরে চুলে আসার অন্যতম কারণ ছিল পৃথিবীর গভীরে অবিরাম ম্যাগমার নির্গমনে।