অ্যান্টার্ক্টিকায় অভিযান ভারতের

অ্যান্টার্ক্টিকায় অভিযান ভারতের

অ্যান্টার্ক্টিকায় ৪১তম বৈজ্ঞানিক অভিযান ভারতীয় বিজ্ঞানীদের। গত সপ্তাহে প্রথম দলটি ওখানে মৈত্রী রিসার্চ স্টেশনে পৌঁছল। ২৩ জন বিজ্ঞানী আর তাদের সঙ্গে সাপোর্ট স্টাফ। জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে আরও চারটি দল ওখানে যাবে। বিজ্ঞানীরা ওখানে দু’টি গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা মূলত করবেন যার মধ্যে ভারতি স্টেশনে আমেরি বরফের চাঁইকে কেন্দ্র করে ভূতাত্বিক গবেষণাও রয়েছে। আর থাকবে মৈত্রী রিসার্চ স্টেশনের কাছে ৫০০ মিটার বরফ খুঁড়ে অনুসন্ধান জরিপ করা হবে। বিজ্ঞানীরা অ্যান্টার্টিকার জলবায়ু, পশ্চিমী হাওয়ার চরিত্র, সমুদ্রের বরফ, গ্রীনহাউস গ্যাস নির্গমন, সব নিয়েই গবেষণা করবেন, জানবেন ১০ হাজার বছর ধরে এই মহাদেশ কীভাবে চলছিল এই উপাদানগুলোকে নিয়ে। গবেষণায় অবশ্যই থাকবে অ্যান্টার্ক্টিকায় সাম্প্রতিক কয়েক বছরে দ্রুত গতিতে কীভাবে বরফ গলে যাওয়ার বিষয়টিও। বিজ্ঞানীরা এবং তাদের সাপোর্ট স্টাফেদের প্রত্যেকে কোভিড-১৯-এর যাবতীয় প্রতিষেধকমূলক ব্যবস্থা নিয়েই ওখানে গিয়েছেন। কেপ টাউনে তারা দু’সপ্তাহের কোয়ারান্টিনেও ছিলেন। এমনকী, আউলিতে আইটিবিপি সংস্থায় তাদের ট্রেনিংও নিয়ে হয়েছে তুষার বরফের মধ্যে কীভাবে থাকতে হবে তার জন্য।
অ্যান্টার্ক্টিকায় ভারতের অভিযান শুরু হয়েছিল ১৯৮১-তে। এখনও পর্যন্ত তিনটি স্থায়ী গবেষণা কেন্দ্র ওখানে স্থাপন করা হয়েছে।