আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান সমীক্ষায় দেশের ২০৪৭ গবেষক।

আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান সমীক্ষায় দেশের ২০৪৭ গবেষক।

একটি সাম্প্রতিক সমীক্ষা অনুযায়ী সারা বিশ্বের সেরা দুই শতাংশ বিজ্ঞানীদের মধ্যে ভারতের শীর্ষস্থান পাওয়া বিশ্ববিদ্যালয় যাদবপুর। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৯ জন গবেষক- অধ্যাপক স্থান পেয়েছেন এই সমীক্ষার তালিকায়। সারা দেশ থেকে তালিখায় স্থান পাওয়া বিজ্ঞানী সংখ্যা ২০৪৭। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং নেদারল্যান্ডসের এলসিভিয়া প্রকাশনা সংস্থার যৌথ উদ্যোগে সারা বিশ্বের বিজ্ঞানী-অধ্যাপক-গবেষকদের নিয়ে ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে চলে একটি সমীক্ষা। সমীক্ষার বিভিন্ন দৃষ্টিকোনের একটি হলো একজন বিজ্ঞানী- গবেষক সারা জীবনে কত গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন, তার সাইটেশন এবং সার্বিক প্রভাব কী ইত্যাদি। বিজ্ঞানের ২২ টি ক্ষেত্র এবং ১৭৬ টি উপক্ষেত্রকে ধরা হয় সমীক্ষায়। অন্তত ৫ টি গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছেন এমন গবেষক-বিজ্ঞানীরাই এই সমীক্ষায় অন্তর্ভুক্ত হন। এসব মিলিয়েই দেওয়া হয়েছে র‍্যাঙ্কিং। এই সমীক্ষা অনুযায়ী যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরেই রয়েছে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, সংখ্যা- ২৪। হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়, সংখ্যা – ২২। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, সংখ্যা- ১৮। অবশ্য বিশ্ববিদ্যালয় সহ অন্যান্য গবেষণা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ধরলে দেশের শীর্ষে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অফ সায়েন্স। এই প্রতিষ্ঠান থেকে সমীক্ষার তালিকায় স্থান পাওয়া গবেষক – অধ্যাপকের সংখ্যা ১১৮। সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ইন্সটিটিউট অফ এমিনেন্স’ এর শিরোপা বাতিল করেছে ইউজিসি। সমীক্ষাটি প্রকাশের পর গত বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাশ জানান, “বিশ্বসভায় যাদবপুর এমন স্থানে বারবার থাকতো। আশা করছি কেন্দ্র যাদবপুরকে ইন্সিটিউট অফ এমিনেন্স সম্মান দেওয়ার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করবে”।