গুজরাতের গ্রামে পড়ল আকাশ গোলক

গুজরাতের গ্রামে পড়ল আকাশ গোলক

মহাকাশ থেকে মাটিতে পড়ল ধাতব গোলক। তাও এক জায়গায় নয় গুজরাতের আনন্দ জেলার তিন তিনটি জায়গায় এই আশ্চর্য ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে আনন্দ জেলার ভালেজ, খাম্ভোলজ এবং রামপুরায় তিনটি ধাতব গোলক হঠাৎই আকাশ থেকে উড়ে এসে মাটিতে পড়ে। এর পরই গ্রামবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়। অনেকে আবার কৌতূহলের বশে ভিড় জমান ওই ধাতব গোলকগুলির চারপাশে। ঘটনাটির তদন্ত করতে ইতিমধ্যেই গুজরাতের ‘ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি’-র বিশেষজ্ঞদের ডেকে পাঠানো হয়েছে। জেলা পুলিশও পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তৎপর হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে খবর, বিকেল ৫টা নাগাদ ভালেজ গ্রামে একটি বড় কালো ধাতব গোলক আকাশ থেকে এসে মাটিতে পড়ে। এই ধাতব গোলকের আনুমানিক ওজন প্রায় পাঁচ কেজি। এর কিছু পর পরই কাছের খাম্ভোলজ ও রামপুরা গ্রামেও একই ধরনের ঘটনা ঘটে। তিনটি গ্রামই একে অপরের থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। এর পরই প্রত্যক্ষদর্শীরা পুরো বিষয়টি পুলিশকে জানান। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, এই ধাতব গোলকগুলি কোনও কৃত্রিম উপগ্রহের ধ্বংসাবশেষ। খাম্ভোলজে এই ধাতব গোলক একটি বাড়িতে পড়লেও ভালেজ এবং রামপুরায় এই ধাতব গোলক দু’টি ফাঁকা জায়গায় পড়েছে। তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হননি বলেও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ধাতব গোলকগুলি মহাকাশ থেকে এসেছে। যদিও পুলিশের দাবি সঠিক তদন্ত না করে এখনই এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা উচিত হবে না। আনন্দ জেলার পুলিশ সুপার অজিত রাজিয়ান জানান, বিশেষজ্ঞের দল পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার পরই কোনও সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছনো যাবে।