গ্লাসগোয় চমকে দিল ১৫বছরের ভিনিশা

গ্লাসগোয় চমকে দিল ১৫বছরের ভিনিশা

এই মেয়ে গ্রেটা থুনবার্গের মত শুধু রাস্তায় নেমে প্রকৃতি দূষণ, বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ে বিশ্ব জোড়া রাজনীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে না। এই মেয়ে রাস্তা দেখায় এবং তারপর বিশ্বের তাবড় তাবড় রাজনৈতিক নেতাদের চ্যালেঞ্জ জানায়! ছেড়ে দিন পৃথিবীটা আমাদের মত ভবিষ্যৎ প্রজন্মের হাতে, দেখে যাবেন একদিন দূষণমুক্ত করে দেব!
মেয়েটির বয়স ১৫। নাম ভিনিশা উমাশঙ্কর। বাড়ি তামিলনাড়ুতে। গ্লাসগোয় চলতি ক্লাইমেট চেঞ্জিং সামিটে (সিওপি ২৬) প্রথমবার আর্থশট প্রাইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। উদ্যোগ নিয়েছেন প্রিন্স চার্লস। মোট পুরষ্কারমূল্য ১ মিলিয়ন পাউন্ড (১০ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা)। সেখানে ভিনিশারের সৌর-চালিত ইস্ত্রি প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছে। কয়লার উনুনের ওপর রেখে গরম হওয়া যে ইস্ত্রি দেশজুড়ে কোটি কোটি মানুষ ব্যবহার করে জামাকাপড়কে আয়রন করার জন্য, সেই ইস্ত্রি কী পরিমাণ কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ করে সেটা অকল্পনীয়! তার পরিপ্রেক্ষিতে ভিনিশার সৌর-চালিত ইস্ত্রি এক যুগান্তকারী আবিষ্কার। সেই ভিনিশা বলেছে সম্মেলনে, “আমরা মানে যারা এখানে আর্থশট প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছি তারাই পৃথিবীর আবহাওয়ার চরম পরিবর্তনের বিরুদ্ধে শ্রেষ্ঠ প্রতিদ্বন্দ্বী এবং একইসঙ্গে আমরাই এই পৃথিবীকে পালটে দেওয়ার জন্য শ্রেষ্ঠ সুযোগ। আমাদের হাতেই ইনোভেশনের সেরা উপাদান। আমাদের সুযোগ দেওয়া হোক।” উমাশঙ্করের এই আবেদন শুনেছেন রাষ্ট্রনেতারা, বিল গেটসের মত ধনকুবেররা, ওখানে যাওয়া স্বেচ্ছাসেবীরাও। আর হ্যাঁ, নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও কথা হয়েছে উমার। মেয়েটা জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী তার প্রোজেক্ট নিয়ে উৎসাহ দেখিয়েছেন। কিন্তু তার বেশি কিছু বলেছেন কি না জানা যায়নি!