জাপানে পাওয়া গেল তৃণভোজী ডায়নোসরের জীবাশ্ম

জাপানে পাওয়া গেল তৃণভোজী ডায়নোসরের জীবাশ্ম

এতদিন পাওয়া যায়নি। এবার তৃণভোজী ডায়নোসরদেরও সন্ধান পাওয়া গেল। বিজ্ঞানীরা বলছেন ভেগান ডায়নোসর। জাপানের হোক্কাইডোতে এই প্রজাতির ডায়নোসরের জীবাশ্ম পেয়েছেন গবেষকরা। ইংল্যান্ডের অন্যতম জনপ্রিয় সংবাদপত্র ইন্ডিপেনডেন্টে প্রকাশিত হয়েছে এই সংক্রান্ত গবেষণাটি। বলা হচ্ছে ভেগান ডায়নোসররা গাছপালা খেয়ে বেঁচে থাকত। এই বিশেষ প্রজাতির ডায়নোসরদের বৈজ্ঞানিক নাম প্যারালিথোরিজিনোসরাস জাপোনিকাস। গবেষকরা জানিয়েছেন ৭২ মিলিয়ন বছর আগে পৃথিবীতে এই প্রজাতির ডায়নোসরদের বাস ছিল। মানে ক্রিটেশাস যুগের শেষের দিকে এই প্রজাতির ডায়নোসরদের দেখে গিয়েছে। এদের মধ্যে ছোট বড় সব ধরনের তৃণভোজী থেরোপড ডায়নোসর ছিল। যাদের পোশাকি নাম ছিল থেরিজিনোসার্স। এরা ছাড়াও জাপানের উত্তরে এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল থেকেও আরও দুটো নতুন প্রজাতির ডায়নোসরের জীবাশ্ম পাওয়া গিয়েছে। মঙ্গোলিয়ার অর্ন্তভাগ থেকে পাওয়া গিয়েছে অ্যালাক্সার্স আর গানুস প্রদেশ থেকে উদ্ধার হয়েছে সুজৌসার্স প্রজাতির ডায়নোসরের জীবাশ্ম। এর বাইরেও চিনের লিয়াওনিং প্রদেশের জেহিল গ্রুপ থেকে গবেষকরা পেয়েছেন তিনরকমের প্রজাতির ডায়নোসরের জীবাশ্ম। তারা হল জিয়াংগোসার্স, বেপিয়াওসার্স এবং লিঙ্গুয়ানোসার্স। তবে গবেষকরা একইসঙ্গে জানিয়েছেন, প্রত্যেকটি থেরিজিনোসার্স তৃণভোজী ডায়নোসরদের উৎপত্তিস্থল জাপান হলেও এদের ট্যাক্সিনোমিক বিশ্লেষণ তারা এখনও করতে পারেননি। জীবাশ্মগুলো পর্যবেক্ষণ করে এখনও পর্যন্ত বিজ্ঞানীরা জেনেছেন ক্রিটেশাস যুগের শেষদিকে যখন মিওসিন যুগ শুরু হচ্ছে সেই সময়ের জীবাশ্ম। গবেষকদের হিসেবে তখনও জাপান সমুদ্রের সৃষ্টি হয়নি। ২৩ মিলিয়ন থেকে ৫.৩ মিলিয়ন বছর আগে এই প্রজাতির ডায়নোসররা সেখানে থাকত।
জাপানের হোক্কাইডোতে যে একই প্রজাতির ডায়নোসরের জীবাশ্ম বিজ্ঞানীরা পেয়েছেন তাকেও দেখে তাদের মনে হয়েছে থেরিজিনোসার্স প্রজাতির ডায়নোসর। গবেষকরা জীবাশ্ম থেকে ডায়নোসরটির দাঁত এবং অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সম্পর্কে যে ধারণা করতে পেরেছেন তাতে তাদের মনে হয়েছে এই প্রজাতির ডায়নোসরা ছিল সবচেয়ে নবীন প্রজাতির ডায়নোসর।