নাসের রামলা

নাসের রামলা

সম্প্রতি ইজরায়েলে একটা ডোবা খুঁড়ে কিছু হাড়গোড়, মাথার খুলি পাওয়া গেছে যা মনে করা হচ্ছে আজ থেকে ১৪০,০০০ থেকে ১২০,০০০ বছর আগেকার প্রস্তরযুগের মানবজাতির এক প্রজাতির। সেই প্রজাতির নামকরণ করা হয়েছে নাসের রামলা। এই প্রজাতি নিয়ানডার্থাল ও ডেনিসোভান প্রজাতির মতোই তৃতীয় আরেক ইউরেশীয় মানবপ্রজাতি। গবেষকরা মনে করছেন, নাসের রামলার জীবাশ্ম আবিষ্কার মানব বিবর্তন সম্বন্ধে অনেক অজানা তথ্যের সন্ধান দেবে। জীবাশ্মবিজ্ঞানী তথা নৃবিজ্ঞানী হেরস্কোভিৎস এই গবেষণা পরিচালনা করেছেন। নাসের রামলা প্রজাতির মানুষ মধ্য প্লেইস্টিসিন যুগে বসবাস করত। ৭৮৯,০০০ থেকে ১৩০,০০০ পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল সেই যুগ। অন্যান্য মানব প্রজাতির সঙ্গে রামলার সংমিশ্রণও ঘটেছিল বলে জানা যায়। অর্থাৎ এই আবিষ্কার প্রমাণ করে এখনকার একমাত্র মানবজাতি হোমো-স্যাপিয়েন্সের পাথরের সরঞ্জাম ব্যবহার করবার সমসাময়িক এই নাসের রামলা। একটি পুরোনো প্রশ্ন আবার মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে – এখনকার মানুষ কি এককভাবে সেই সময়কার হোমো-স্যাপিয়েন্সেরই সরলরৈখিক বিবর্তিত রূপ নাকি একাধিক প্রজাতির সাক্ষর বহন করে আজকের মানুষ!