পরমাণু নির্গত অজানা প্যাটার্নের ইলেকট্রন কণার সন্ধান

পরমাণু নির্গত অজানা প্যাটার্নের ইলেকট্রন কণার সন্ধান

পরমাণু থেকে নির্গত ইলেকট্রন কণা তরঙ্গায়িত হয়ে ধাবিত হয়। চলতি সেপ্টেম্বরে অতি উন্নত মাইক্রোস্কোপের মাধ্যমে যে ছবি বিজ্ঞানীরা তুলেছেন তাতে দেখা যাচ্ছে পরমাণু থেকে ইলেকট্রন কণা নির্গত হচ্ছে স্প্রিংকে টেনে শঙ্কুর মতো করলে যে গতিপথ তৈরি হবে অমন গতিপথে। বাংলায় যাকে বলা যেতে পারে ক্রমগতিশীল দীপ্তির ঘূর্ণাবর্ত। এই বিশেষ কায়দায় নির্গত ইলেকট্রন কণার গতিপথকে বলা হয় ‘ভোর্টেক্স বীম’।

কোয়ান্টাম ফিজিক্স অনুসারে অণু-পরমাণুর তরঙ্গের প্যাটার্ন বিশ্লেষণ করে একটি স্থানে ওই অণুর অবস্থানের সম্ভাবনা বলে দিতে পারেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু ‘ভোর্টেক্স বীম’ তরঙ্গায়িত হয় না। এটি এগিয়ে যায় ঘূর্ণাবর্তের মতো। ফলে আবর্তনশীল তীর্যক ভরবেগ বাহিত হয় এর ঘূর্ণায়মান পথে। এই বিশেষ ধরনের গতীয় বৈশিষ্ট্য বা তেজকে বলা হয় ‘অরবিটাল অ্যাঙ্গুলার মোমেন্টাম’। ইজরায়েলের পদার্থবিদ ইদভার্ডাস নারেভিকাস জানাচ্ছেন, ঘূর্ণায়মান বেগ অপরিচিত তো বটেই সঙ্গে বিস্ময়করও।

কিন্তু অণু-পরমাণু থেকে নির্গত ‘ভোর্টেক্স বীম’-এর সম্ভাব্য প্রয়োগপ্রণালী কী হতে পারে সে কথা এখনও অজানা বিজ্ঞানীমহলের। স্কটল্যাণ্ডের গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ সঞ্জা ফ্রাঙ্ক আর্নল্ড বলেন, শীঘ্রই জানা প্রয়োজন ‘ভোর্টেক্স বীম’ দ্বারা কী করা যেতে পারে।