পৃথিবীর চারপাশে চৌম্বক সুড়ঙ্গের হদিশ

পৃথিবীর চারপাশে চৌম্বক সুড়ঙ্গের হদিশ

রাতের আকাশে দুই বিপরীত প্রান্তে রহস্যে মোড়া দুটি কাঠামো দেখা যায়। একটি নর্দান পোলার স্পার অঞ্চলে। অন্যটি বিপরীতে- ফ্যান রিজিওন অঞ্চলে। গত শতকের ছয়ের দশক থেকে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা এ নিয়ে কৌতুহলী। সম্প্রতি জ্যোতির্বিজ্ঞানের গবেষণায় জানা গেল পৃথিবীকে চারপাশ থেকে মুড়ে রাখেছে এক বিশাল চৌম্বক সুড়ঙ্গ। আকাশের ঐ বিষ্ময়কর কাঠামো দুটি সেই সুড়ঙ্গেরই অংশ। সুড়ঙ্গের মধ্যে যেমন বাইরের কলাহল পাওয়া যায় না, তেমনি এই সুড়ঙ্গই পৃথিবীকে বাইরের সৌরমণ্ডলের কোলাহল থেকে মুক্ত রেখেছে। ধারণা ছিল জমাট উষ্ণ গ্যাসেই সৃষ্ট ঐ দুই কাঠামো। রেডিও টেলিস্কোপে প্রাপ্ত পর্যাপ্ত তথ্যের অভাবেই এতদিন বিষ্ময়কর কাঠামো দুটি সম্পর্কে সঠিক ধারণা ছিলনা জ্যোতির্বিজ্ঞানী মহলের। নর্দান পোলার স্পার অঞ্চলের কাঠামোটি স্যাজিটারিয়াস নক্ষত্রপুঞ্জ থেকে স্করপিয়াস,লুপাস, সেন্টাওরাস নক্ষত্রপুঞ্জ পর্যন্ত বিস্তৃত দেখা যায়। বিপরীত প্রান্তের কাঠামোটি আকাশগঙ্গা ছায়াপথের ১৩০ডিগ্রি দ্রাঘিমাংশে দেখা যায়৷ দুটি অঞ্চল থেকেই উষ্ণ এক্স রশ্মি আর রেডিও তরঙ্গ বেরিয়ে আসার কারনে এদের কে দেখতে হয় রেডিও টেলিস্কোপে, খালি চোখে দেখা যায় না।

চিত্র ঋণ- সায়েন্স অ্যালার্ট