পোকার নাম ‘হিটলার’

পোকার নাম ‘হিটলার’

মহারাষ্ট্রের আম্বোলি জাতীয় উদ্যান বছরের বেশিরভাগ সময় প্রায়ান্ধকার হয়ে থাকে, সৌজন্যে পশ্চিমঘাট পর্বতমালার বিখ্যাত বৃষ্টি। স্যাঁতসেতে এই জঙ্গল ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফারদের কাছে এক বিশেষ লোভনীয় জায়গা।
তাঁদেরই একজন, সম্প্রতি এই জঙ্গলে দেখতে পান এক বিশেষ প্রজাতির পতঙ্গ। দেখামাত্র ছবি তুলতে তিনি দেরি করেন নি। সেই ছবি দেখলে অবাক না হয়ে পারা যায় না। কারণ ওই পোকার পেছনের দিকে অবিকল ফুটে উঠেছে খুব চেনা এক ব্যক্তির ছবি। আর ওই পোকার নামও যে সেই মানুষটির নামেই–
অ্যাডলফ হিটলার!
হ্যাঁ, হিটলার বাগ ওই পোকার নাম। ওর বিজ্ঞানসম্মত নামেও রয়েছে সেই নেতার নাম– ‘অ্যানোফথ্যালমাস হিটলেরি’। ১৯৩৩ সালে আবিষ্কার করেছিলেন অস্কার শেইবেল। তখন জার্মানি জুড়ে হিটলারের প্রবল জনপ্রিয়তা, এবং এই পতঙ্গবিদ শেইবেল নিজেও ছিলেন দারুণ হিটলারপ্রেমী, যে কারণে প্রিয় নেতার নামে এক বিশেষ ধরনের পোকার নাম দিতে বেশি দ্বিধা করেন নি।
তখন এই পোকা পাওয়া যেত শুধুমাত্র স্লোভানিয়ার কিছু গুহা-এলাকায়। পরে অবশ্য পৃথিবীর আরও নানা জায়গায় এর সন্ধান মিলতে শুরু করে। নাৎসি জার্মানির পতনের পর এই পোকাকে নিয়ে বিশেষ কেউ আর মাথা ঘামাতেন না। পরে বেশ কিছু কারণে এই পোকাকে সংগ্রহ করে রাখবার একটা হুজুগ শুরু হয়। হিটলারের নামাঙ্কিত যে কোনও কিছুই সংগ্রাহকদের কাছে লোভনীয় হয়ে উঠতে থাকে, যার মধ্যে একেবারে অনিচ্ছাসত্ত্বেও স্থান পায় নিরীহ এক পোকা। এমনকি বিভিন্ন পতঙ্গ-মিউজিয়াম থেকেও এই পোকার নমুনা চুরি হতে শুরু করে।
কিন্তু সম্প্রতি হিটলার বাগ আবার আস্তে আস্তে খবরের শিরোনামে উঠে আসছে। এই প্রজাতির বিভিন্ন উপপ্রজাতির পতঙ্গ বিলুপ্ত হয়ে পড়ছে পৃথিবী থেকে, পতঙ্গবিদদের কাছে এই ব্যাপারটা এখন বেশ উদ্বেগের।
ভারতে যে এই পোকার সামান্য কিছু নমুনা এখনও টিকে রয়েছে, এইটাই যা আশ্বাস। আশঙ্কারও।