প্রথম বৈদ্যুতিক জাহাজ চালু করলো নরওয়ে

প্রথম বৈদ্যুতিক জাহাজ চালু করলো নরওয়ে

ইয়ারা বার্কল্যান্ড – বিশ্বের প্রথম বৈদ্যুতিক ও স্বয়ংক্রিয় মালবাহী জাহাজ। গত ১৯ শে নভেম্বর নরওয়ে জাহাজটিকে জনসমক্ষে আনে। মূলত বিশ্ব উষ্ণায়ন কমানোর লক্ষ্যে কার্বন নির্গমন হ্রাস করতে এই জাহাজটি চালু করেছে নরওয়ে। জাহাজটি স্বয়ংক্রিয় অর্থাৎ চালক ছাড়াই জাহাজটি চলবে, কেননা এতে লাগানো রয়েছে একটি সেন্সর। সেন্সরের সাহায্যেই চালক ছাড়া চলতে সক্ষম জাহাজটি। তবে স্বয়ংক্রিয় ভাবে চলার জন্যে জাহাজটির আরো সংস্কারের দরকার। তাছাড়াও স্বয়ংক্রিয় নেভিগেশনের জন্যে কোনো আইন নেই। সে আইনেরও প্রয়োজন। আপাতত আগামী ২ বছর পরীক্ষামূলক ভাবে চলবে জাহাজটি।
কার্বন নির্গমন কমানোর ক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক জাহাজ চালু করা জলবায়ু বিপর্যয় রোধে ভূমিকা রাখবে বলেই মনে করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে এই জাহাজ চলাচলের ফলে এক বছরে প্রায় ৪০ হাজার ডিজেলচালিত ট্রাক চালাতে হবে না। ফলে কমবে পরিবেশ দূষণ। ইয়ারা বার্কল্যাণ্ডের দৈর্ঘ্য ৮০মিটার। জাহাজটি ৩২০০ টন মালবহন করতে পারবে। নরওয়ের ব্রোভিক বন্দরে ১২০ কন্টেনার সার বহনের মাধম্যে জাহাজটির কার্যক্রম শুরু হয়।