প্রাণী সংরক্ষণে অভিনব উদ্যোগ ওড়িশা সরকারের

প্রাণী সংরক্ষণে অভিনব উদ্যোগ ওড়িশা সরকারের

বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রতিফলনে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে প্রচুর বিরল প্রজাতির প্রাণী। বিভিন্ন রাষ্ট্র উদ্যোগও নিচ্ছে হারিয়ে যাওয়া বিরল প্রজাতির প্রাণীকে বাঁচিয়ে রাখার, সংরক্ষণের নানারকমের পদ্ধতিতে। ওড়িশা সরকার সেরকমই একটি অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে সম্প্রতি। বিরল প্রজাতির এক কচ্ছপ, অলিভ রিডলে কচ্ছপদের সংরক্ষণ করার কথা মাথায় রেখে মৎসজীবীদের জন্য বিশেষ একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপ) তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। এই অ্যাপের মাধ্যমে মৎসজীবীরা বুঝতে পারবেন তারা কোনও সংরক্ষিত অঞ্চলে প্রবেশ করেছেন কি না। জিপিএস প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে এই ‘ফিশার ফ্রেন্ডলি অ্যাপ’ তৈরি করা হয়েছে। এই অ্যাপটি ব্যবহারের জন্য কোনও ইন্টারনেটের সহায়তা লাগবে না। সাধারণত পর্বতারোহীদের অভিযানের আগে তাদের হাতে এরকম অ্যাপ তুলে দেওয়া হয় যাতে ইন্টারনেটের সহায়তা ছাড়াই তারা পর্বতে তার ব্যবহার করতে পারে। সেই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ওড়িশা সরকার মৎসজীবীদের জন্য এই অ্যাপ তৈরি করেছে। আপাতত ২২ হাজার মৎসজীবীর হাতে এই অ্যাপ তুলে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।
২০১৯-২০ সালে ওড়িশার উপকূলে অলিভ রিডলে কচ্ছপের সংখ্যা ছিল ৬৩২০টি। ২০২১-এ সেটা নেমে এসেছে ২৫৭৫-এ! তাই সরকার দেবী ও গহিরমাখা অঞ্চল দু’টিকে সংরক্ষিত বলে ঘোষণা করেছে। একইসঙ্গে গহিরমাখা নদীর মোহনার একটি জলজ অভয়ারণ্যও গড়ে তুলেছে ওড়িশা সরকার। এই সব অঞ্চলে মৎসজীবীদের প্রবেশ নিষেধ। কিন্তু অঞ্চল নির্ধারণ করতে যাতে তাদের অসুবিধে না হয় তাই এই অ্যাপ চালু করে হল। এর ফলে সংরক্ষিত অঞ্চলে যেমন তারা ঢুকবে না, সেরকম সমুদ্রে তাদের হারিয়ে যাওয়াও কমে যাবে। অ্যাপের ব্যবহারে তারা বুঝতে পারবে সমদ্রের কোথায় তারা আছে।