বিষাক্ত গাজরে রয়েছে করোনার ওষুধ!

বিষাক্ত গাজরে রয়েছে করোনার ওষুধ!

বিষে বিষে বিষক্ষয়! করোনা দ্বিতীয় ভাইরাসের ভ্যারিয়ান্ট ডেল্টা নিয়ে পৃথিবী জুড়ে চলছে আতঙ্ক। যার ফলে গবেষণারও কম নেই। এরকম অবস্থায় গ্রেট ব্রিটেনের নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের দাবি, ডেল্টা ভ্যারিয়ান্টকে থামানোর আবার এক নতুন আবিষ্কার করেছেন বলে।
তাদের দাবি বিশেষ প্রজাতির এক বিষাক্ত গাজর গাছের বিষই আগামী দিনে হতে পারে ডেল্টা ভ্যারিয়ান্টের প্রতিষেধক! গাছের নাম ডেডলি ক্যারটস। সেই গাছের দেহেই থাকে এক বিশেষ ধরণের প্রোটিন। তার নাম থ্যাপসিগারটিন। ডেল্টায় আক্রান্ত রোগীর শরীরে সেই বিশেষ প্রোটিন প্রবেশ করিয়েই রোগীকে ডেল্টা মুক্ত করা যেতে পারে বলে বিজ্ঞানীদের দাবি। গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে আন্তর্জাতিক গবেষণা পত্রিকা ভাইরুলেন্সে। বিজ্ঞানীদের আরও দাবি এই প্রোটিন শুধু ডেল্টা নয়, অদূর ভবিষ্যতে মানুষকে আক্রমণ করা করোনা ভাইরাসের সব রকমের ভ্যারিয়ান্ট, তাদের সংক্রমণ এবং ভাইরাসের কোষবৃদ্ধিও। বিষাক্ত গাজর গাছের এই বিশেষ প্রোটিন করোনা ভাইরাসকে যে শরীরে ঢুকতে দেয় না সেটা গত ফেব্রুয়ারিতেই বিজ্ঞানীরা বুঝেছিলেন। এবারের গবেষণায় তারা আরও নিশ্চিত হয়েছেন যে, এই বিশেষ প্রোটিন ভাইরাসের বংশবৃদ্ধিও বন্ধ করে দেয়।
ক্লিনিকাল ট্রায়ালে পাস করে গেলে বিজ্ঞানীদের দাবি এই আবিষ্কার ভবিষ্যতে কোভিড চিকিৎসায় যুগান্তকারী এক আবিষ্কার বলে গণ্য হবে।