ভোঁদরের কেরামতি

ভোঁদরের কেরামতি

সব থেকে ছোটো সামুদ্রিক স্তন্যপায়ী প্রাণী কি? জবাবটা হল, সামুদ্রিক ভোঁদড়। এই প্রাণীটিই ধাঁধায় ফেলে দিয়েছে গবেষকদের। শীতল মহাসাগরে ভোঁদর কী ভাবে নিজের দেহতাপের ভারসাম্য বজায় রাখে সেটাই ভাবাচ্ছে তাঁদের। পেশী সঞ্চালনে পেশীর মধ্যে অতিরিক্ত তাপ উৎপন্ন হয়। সেই তাপ শরীরকে গরম রাখে। গবেষকেরা দেখেছেন, ভোঁদরের পেশীর যা ভর তাতে শীতল মহাসগরে নিজেকে যথেষ্ট উত্তপ্ত রাখার শক্তি উৎপন্ন‌ করা সম্ভব নয়।
সিল জাতীয় জলজ স্তন্যপায়ীদের কেবল বিপাক ক্রিয়াই যে উন্নত তাই নয়, পাশাপাশি এদের দেহের আয়তন ও পুরুষ চর্বির আস্তরণ দেহতাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। সামুদ্রিক ভোঁদড়ের পেশীর ওজন যেমন কম, তেমনই চর্বির কোনও আস্তরণ থাকেনা। তাহলে? গবেষকেরা দেখেছেন, তার ওজন ও আকারের একটি অন্য স্তন্যপায়ীর থেকে ভোঁদরের বিপাক ক্রিয়ার হার তিনগুন বেশি। এই দ্রুত হারের বিপাক ক্রিয়াই ভোঁদড়কে দেহের গড় উষ্ণতা ৩৭ডিগ্রি সেলসিয়াস রাখতে সাহায্য করে। আমেরিকার টেক্সাস এ অ্যান্ড এম ইউনিভার্সিটির কম্পারেটিভ ফিজিওলজিস্ট ট্রেভার রাইট ২১টি বাচ্চা ও পরিণত সামুদ্রিক ভোঁদড় সংগ্রহ করেছেন। তাদের উপরেই চলছে গবেষণা।