মানুষের জন্ম হবে অন্য গ্রহে, বেড়াতে আসবে পৃথিবীতে!

মানুষের জন্ম হবে অন্য গ্রহে, বেড়াতে আসবে পৃথিবীতে!

ধনকুবেররা হয়ত পারেন সমস্ত স্বপ্নকে সত্যি করতে! আমাজন আর ব্লু অরিজিনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস যেরকম একটা স্বপ্ন দেখেছেন। বলেও ফেলেছেন সম্প্রতি ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল ক্যাথিড্রালের একটি অনুষ্ঠানে। জেফের স্বপ্ন, ভবিষ্যতের মানুষ আর পৃথিবীতে জন্মাবে না! সৌরজগতের বিভিন্ন গ্রহ হবে তাদের জন্মস্থান! পৃথিবী তখন তাদের বেড়ানোর জায়গা হবে! জোরের সঙ্গে বলা জেফের মন্তব্য, “এখন আমরা যেভাবে ইয়োলো স্টোন ন্যাশনাল পার্ক দেখতে যাই, সেই সময় অন্য কোনও গ্রহ থেকে মানুষ আসবে পৃথিবী দেখতে! আগামী ১০০ বছরের মধ্যেই এরকম ঘটনা ঘটবে।” শ্রোতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নাসার অন্যতম কর্তা বিল নেলসনও। অনুষ্ঠানের পর তার সামনে সাংবাদিকরা এই প্রসঙ্গ তুলেছিলেন। নেলসন বলতে পারেননি যে ঘটনাটা ঘটবে না! মজার কথা বেজোসের মত আর এক ধনকুবের, স্পেস এক্সের মালিক এলন মাস্কের মুখেও সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে শোনা গিয়েছে একই স্বপ্নের কথা।
জেফ বেজোসের মহাকাশ ভ্রমণের পর থেকেই স্পেস টুরিজম নিয়ে ধনকুবেরদের মধ্যে আলোচনা, উদ্যোগ নেওয়া শুরু হয়েছে। মহাকাশচারীদের মত নাগরিকরাও এখন কোটি টাকা খরচ করে মহাকাশে বেড়াতে যেতে পারছেন। যেমন এলন মাস্কের উদ্যোগে স্পেস-এক্সের মহাকাশযানে চেপে পাঁচ নাগরিক মহাকাশে বেড়িয়ে এসেছিলেন গত মাসে।
তবে নিয়ে পৃথিবীর উষ্ণায়ন এবং বায়ুদূষণ নিয়ে বেজোসের মন্তব্য উল্লেখ না করলে এই প্রতিবেদন অসমাপ্ত থেকে যাবে। বায়ুদূষণ প্রসঙ্গে বেজোস ওই অনুষ্ঠানে বলেছেন, “পৃথিবীকে দূষণমুক্ত করতে হলে এখানকার দূষণপ্রবণ শিল্প সংস্থা, মানে সমস্ত কারখানাগুলোকে মহাকাশে, অন্য গ্রহে নিয়ে যেতে হবে! না হলে পৃথিবীকে সুন্দর রাখা যাবে না!” গ্রেটা থুনবার্গ শুনলে কী বলবেন কে জানে!