মেয়ের বয়স ৩৭ হাজার বছর!

মেয়ের বয়স ৩৭ হাজার বছর!

২০১৫-য় ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপ থেকে মাটি খুঁড়ে পাওয়া গিয়েছিল মেয়েটির কঙ্কাল। তবে ডিএনএ পরীক্ষায় জানা যায় যে মেয়েটি মারা গিয়েছে ‘মাত্র’ সাত হাজার দু’শ বছর আগে! বিজ্ঞানীরা পরে এ-ও জেনেছেন যে মারা যাওয়ার সময় মেয়েটার বয়স ছিল ১৭ বা ১৮ বছর। কিন্তু কোন প্রজাতির মানুষ ছিল সে? ডিএনএ পরীক্ষা করে জানা গিয়েছে, মেয়েটা ছিল প্রাক-নব্য প্রস্তর যুগের। বর্তমান যুগের পাপুয়ান এবং আদিবাসী অস্ট্রেলিয়ানদের সঙ্গে তার প্রজাতির যোগাযোগ ক্ষীণ, সেই সময়ের যাযাবরদের মধ্যে টোয়ালিয়ান নামের এক প্রজাতির মানুষ ছিল সে। তবে নিশ্চিতভাবে বিজ্ঞানীরা এখনও জানতে পারেননি ওই মেয়েটি ঠিক কোন প্রজাতির ছিল। তাই তার প্রজাতিকে ‘বিরল’ আখ্যা দিয়েছেন ওই বিজ্ঞানীদল। ওঁরা বলছেন প্রায় ৩৭ হাজার বছর আগে আদিবাসী অস্ট্রেলিয়ান এবং পাপুয়ানদের মধ্যে ভাঙ্গন হওয়ার আগেকার সময়কালের কোনও এক প্রজাতির হয়ে থাকবে সে। টোয়ালিয়ান প্রজাতি ছিল মূলত শিকারী। দক্ষিণ সুলাওয়েসির জঙ্গলে তারা বন্য শুয়োর এবং সমুদ্র থেকে মাছ শিকার করে খেত।