শুক্রাণু ছাড়াই জন্ম

শুক্রাণু ছাড়াই জন্ম

শুক্রাণু নিষিক্ত করে ডিম্বাণুকে। তারপরেই স্ত্রী লিঙ্গবিশিষ্ট স্তন্যপায়ী প্রাণীদের গর্ভে ভ্রূণ জন্মায়। ক্রমে তা শিশু বা শাবক হিসেবে জন্ম নেয় পৃথিবীতে। কিন্তু শুক্রাণু ছাড়া জন্ম? এ তো বিজ্ঞানের হিসেবের বাইরে! তবু ঠিক এই আশ্চর্য ঘটনা ঘটেছে ইতালির সারদিনিয়ার আকুয়ারিও কালা গোনোন নামের একটি ট্যাংকে। ঐ ট্যাংকে গত দশ বছর ধরেই রয়েছে কেবল দুটি স্ত্রী হাঙর। অথচ সেই ট্যাংকেই জন্ম নিয়েছে স্ত্রী লিঙ্গবিশিষ্ট একটি শাবক হাঙর। অবাক হয়ে বিজ্ঞানীরা তার নামও রেখেছেন বেশ মজার, ‘মিরাকল বেবি শার্ক’।
কিন্তু কেমন করে সম্ভব হল এমন?
বিজ্ঞানের ভাষায় এই ধরনের জন্মকে বলে ‘এসেক্সুয়াল বার্থ’। কিছু কীটপতঙ্গ ও উদ্ভিদের বেলায় এমনটা আগে দেখা গেলেও বড় স্তন্যপায়ীদের ক্ষেত্রে প্রথমবার ঘটল এমন ঘটনা। দ্বিতীয় একটি সম্ভাবনাও মিলেছে বিজ্ঞানীমহলের কাছ থেকে– ট্যাঙ্কের একটি হাঙরের ডিম্বাণু অপরিপক্ক অবস্থায় শুক্রাণুর মতোই কাজ করে নিষিক্ত করতে পারে ডিম্বাণুকে। দীর্ঘ সময় ধরে পুরুষ সঙ্গীর অভাব এই বদল ঘটাতে সাহায্য করতে পারে বলে অনুমান। তবে ডিএনএ পরীক্ষার ফল হাতে এলেই খুলে যেতে পারে নতুন গবেষণার দরজা।