শুয়োরের কিডনি মানবদেহে : প্রাথমিক সাফল্যের দাবি

শুয়োরের কিডনি মানবদেহে : প্রাথমিক সাফল্যের দাবি

প্রাণীদেহ থেকে মানবদেহে সফল অঙ্গ প্রতিস্থাপন- পারিভাষিক নাম জেনোট্রান্সপ্লান্টেশন। এই অধরা স্বপ্নই বোধ হয় ছুঁতে ষ্টচলেছে এবার চিকিৎসাবিজ্ঞান। গত ১৯ অক্টোবর নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীদের পরিক্ষামূলক ভাবে মানবদেহে শুয়োরের কিডনি প্রতিস্থাপনে সাফল্য পাওয়া গেছে বলে জানা গিয়েছে । প্রাথমিক ভাবে শুয়োরের কোষে উপস্থিত শর্করা জাতীয় পদার্থের জন্যে প্রতিস্থাপনে অসুবিধা হচ্ছিল। সাফল্য অধরাই থাকছিল অস্ত্রোপচারে। পরে জিন পরিবর্তন করে ঐ বিশেষ শর্করা পদার্থটি বাদ দিয়ে শুয়োরের জেনেটিকালি ইঞ্জিনিয়ার্ড কিডনিকে সদ্য মৃত গ্রাহকের একজোড়া রক্তনালীর সাথে জুড়ে দিয়ে কিডনিকে শরীরের বাইরে রাখা হয় পর্যবেক্ষণের জন্য। দুদিন পরে দেখা যায় কিডনি নিজের কাজ করছে। কাজ করছে ইমিউন সিস্টেমও। প্রধান গবেষক সার্জেন রবার্ট মন্টেগোমারি জানান – একেবারে স্বাভাবিক কাজ করছে কিডনি। এখন দেখার পদ্ধতি শেষতক সফল হয় কি না৷ সফল হলে নিশ্চিতভাবেই জেনোট্রান্সপ্লান্টেশনে তৈরি হবে এক মাইলস্টোন।

অস্ত্রোপচার চলাকালীন ছবি – রয়টার্স