সৌরজগতের বাইরেও চৌম্বকক্ষেত্র, জানাল হাবল

সৌরজগতের বাইরেও চৌম্বকক্ষেত্র, জানাল হাবল

সূর্য থেকে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে ভয়ঙ্কর কোনও সৌরঝড় অথবা পৃথিবীর দিকে তেড়ে আসছে বিশালাকায় কোনও গ্রহাণু-প্রায়ই শোনা যায় এই ধরণের খবর। কিন্তু কোনও কিছুর প্রভাব শেষপর্যন্ত পড়ে না পৃথিবীর ওপর। জীবজগৎও নিরাপদেই বেঁচে থাকে। তার কারণ পৃথিবীকে ঘিরে রয়েছে এক চৌম্বকক্ষেত্র বা ম্যাগনেটোস্ফিয়ার। সৌরজগতের সমস্ত গ্রহের নিজস্ব চৌম্বকক্ষেত্র রয়েছে। কিন্তু এই প্রথম সৌরজগতের বাইরের কোনও গ্রহের চৌম্বকক্ষেত্র শনাক্ত করলেন বিজ্ঞানীরা। নাসার স্পেস টেলিস্কোপ হাবলের সহায়তায় শনাক্তকরণ সম্ভব হয়েছে। আর গ্রহটি রয়েছে পৃথিবী থেকে ১২৩ আলোকবর্ষ দূরে। গ্রহটি প্রথম শনাক্ত করে হয়েছিল ২০০৯-এ। আর পাঁচটা এক্সোপ্ল্যানেটের মতই সে। আয়তনে নেপচুনের চেয়ে সামান্য ছোট। ভর পৃথিবীর প্রায় ২৩.৪ গুণ। ৫১ পেগাসি নক্ষত্রের চারদিকে ঘোরে গ্রহটি। সেই ছবিই উঠেছে হাবল টেলিস্কোপে। এখন বিজ্ঞানীদের মধ্যে শুরু হয়েছে এই গ্রহে প্রাণের সম্ভাবনা রয়েছে কি না সেই নিয়ে গবেষণা করার পরিকল্পনা। কারণ বিজ্ঞানীদের মতে জীবজগতের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য চৌম্বকক্ষেত্র অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।