হারের দায়ও করোনার

হারের দায়ও করোনার

কোভিড পরবর্তী সময়ে যে কোনও আর্ন্তজাতিক ফুটবল ম্যাচে ‘হোম টিম’ হেরেছে বেশি। ২০১৮-১৯ মরশুমে ইউরোপে ফুটবল ম্যাচ হয়েছে ৬৪৫টা। সেখানে কোভিড পরবর্তী সময়ে ২০১৯-২০ মরশুমে ইউরোপে ম্যাচ হয়েছে ৬৪১টি। অস্ট্রিয়ার এক বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই ক্রীড়া মনোবিদের গবেষণায় উঠে এসেছে এই তথ্য। ফ্যাবিও রিকলান এবং মিকায়েল লিটনার, এই দুই ক্রীড়া মনোবিদ জানিয়েছেন কোভিড পরবর্তী মরশুমে দর্শকহীন স্টেডিয়ামে সমস্ত ম্যাচ হয়েছে। যাকে মনোবিদরা বলছেন ‘ঘোস্ট গেম’। বিশ্লেষণ করা হয়েছিল ইউরোপের কয়েকটি দেশকে নিয়ে। যেমন ইতালি, স্পেন, ইংল্যান্ড, জামার্নি, রাশিয়া, তুরস্ক, অস্ট্রিয়া এবং চেক রিপাবলিক ছিল গবেষণায়। পরিসংখ্যানের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে ২০১৮-১৯ এর তুলনায় কোভিডে আক্রান্ত ২০১৯-২০-র মরশুমে হোম টিমের হার অনেক বেশি। ২৭.৬ শতাংশ থেকে বেড়ে হয়েছে ৩৬ শতাংশ! জয়ের হারও কমে গিয়েছে ৮.৩ শতাংশ। মনোবিদের বিশ্লেষণে হোম টিমের হার বেশি হওয়ার মূল কারণ তাদের জন্য দর্শকদের না চেঁচানো! বিশ্লেষণে মনোবিদরা আরও দেখিয়েছেন যে, দর্শকদের অবিরাম চিৎকারে রেফারিও প্রভাবিত হন। হোম টিমকে বেশি ফাউল দেওয়া হয়! যেটা ২০১৯-২০-র মরশুমে দর্শকহীন স্টেডিয়ামে হয়নি।