১৪ই মার্চ, পাই ডে উদযাপন

১৪ই মার্চ, পাই ডে উদযাপন

বিশ্বজুড়ে গণিতপ্রেমীরা, কলেজের ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে রকেট সায়েন্টিস্টরা, ১৪ই মার্চ পাই দিবস উদযাপন করে। কারণ ১৪ ই মার্চ বা ৩/১৪ পাই এর অসীম সংখ্যা (৩.১৪২৮৫…)-এর মধ্যে প্রথম তিনটি সংখ্যা। সারা বিশ্বে অনেক মানুষ এক টুকরো মিষ্টি বা নোনতা মশলাদার পাই, অথবা পিৎজা সহকারে দিনটি উদযাপন করে থাকে। পাই এক গাণিতিক ধ্রুবক, যা বৃত্তের পরিধি ও ব্যাসের অনুপাত। এই গাণিতিক ধ্রুবক পদার্থবিজ্ঞান, জ্যোতির্বিজ্ঞান, ইঞ্জিনিয়ারিং-এ হাজার হাজার বছর ধরে প্রাচীন মিশর, ব্যাবিলন, চিনে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ১৭০৬ সালে গণিতজ্ঞ উইলিয়াম জোন্স পাই-য়ের জন্য গ্রিক চিহ্ন π ব্যবহার শুরু করেন। কারণ গ্রিক বর্ণ পেরিমিটার বা পেরিফেরি র প্রথম বর্ণ হল π , আগেই উল্লেখ করা হয়েছে পাই বৃত্তের পরিধি ও ব্যাসার্ধের অনুপাত।
১৯৮৮ সালে পদার্থবিদ ল্যারি শ সান ফ্রান্সিসকোর এক্সপ্লোরেটরিয়াম সায়েন্স মিউজিয়ামে পাই ডে উদযাপন শুরু করেছিলেন। যদিও দুই দশক পরে, ২০০৯ সালে, কংগ্রেস প্রতি ১৪ মার্চকে পাই দিন হিসাবে মনোনীত করে জাতীয় স্বীকৃতি দেয়, যাতে গণিত এবং বিজ্ঞানের প্রতি মানুষের আরও আগ্রহ জাগে। এই সংখ্যা পরিশোধনাগারের সরঞ্জামগুলোতে প্রয়োজনীয় বিশাল আকারের সিলিন্ডার থেকে প্রিন্টারগুলোতে ব্যবহৃত কাগজের রোলের আকার পর্যন্ত সব কিছু নির্ণয় করতে সাহায্য করে। পাই বিভিন্ন আকারের বিল্ডিংগুলোয় গরম এবং এয়ার কন্ডিশনার সিস্টেমের জন্য প্রয়োজনীয় ট্যাঙ্কের স্কেল নির্ধারণ করতেও প্রয়োজন পড়ে। নাসা তাদের দৈনন্দিন কাজে পাই ব্যবহার করে, – কক্ষপথ গণনা করতে, গ্রহ এবং অন্যান্য মহাজাগতিক বস্তুর অবস্থান জানতে, রকেট চালনার উপাদান জানতে, মহাকাশযানের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করতে, যখন একটা যান পৃথিবীতে ছিটকে পড়ে বা মঙ্গল গ্রহে অবতরণ করে তখন প্যারাসুটগুলোর সঠিক স্থাপনার জন্য। বিজ্ঞানীরা বলেছেন পাই-এর মাত্র নটা সংখ্যা ব্যবহার করে, পৃথিবীর পরিধি নির্ণয় করা যায়, প্রতি ২৫০০০ মাইল, যা প্রায় ৪০০০০০ কিলোমিটার, তার জন্য এক ইঞ্চির এক চতুর্থাংশ বা মাত্র ০.৬ সেন্টিমিটার ভুল হয়।
পাই ডে কীভাবে উদযাপিত হয়? সান ফ্রান্সিসকো মিউজিয়াম এই ছুটির দিনটি তৈরি করেছিল। তারা সেখানে একটি বৃত্তাকার ফলকের চারপাশে ৩.১৪ বার প্যারেড করে, যা পাই শ্রাইন নামে পরিচিত। তারপরে, প্রচুর পাই খাইয়ে আনন্দ পালন করে। কলেজ ক্যাম্পাসেও অনেক অনুষ্ঠান হয়। ফ্লোরিডার নোভা সাউথইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি “মেন্টাল ম্যাথ বিঙ্গো” নামে একটি গেম এবং ফ্রি পিৎজা (পাই), ডেজার্টের ইভেন্ট পরিচালনা করে। নাসার বার্ষিক অনলাইনে “Pi Day Challenge”-এ সকলের জন্য প্রচুর গেম এবং ধাঁধা থাকে। যার মধ্যে কিছু সরাসরি মহাকাশ সংস্থার নিজস্ব প্লেবুক থেকে থাকে, যেমন একটি গ্রহাণুর কক্ষপথ গণনা করা, একটি চাঁদ রোভারকে প্রতিদিন কত দূরত্ব ভ্রমণ করতে হবে অথবা একটি নির্দিষ্ট চন্দ্র অঞ্চল জরিপ করা।
উল্লেখ্য ১৮৭৯ সালের ১৪ ই মার্চ (যে দিন এখন পাই ডে হিসেবে পরিচিত) আলবার্ট আইনস্টাইনের জন্মদিন! যিনি তার প্রচুর কাজে এই সংখ্যা ব্যবহার করেছেন। আর ২০১৮ সালে এই দিনে অপর একজন বিখ্যাত পদার্থবিদ স্টিফেন হকিং-এর মৃত্যু ঘটে।